বিয়ের ১০ মাসের মধ্যে চাকদহ পালপাড়ায় গৃহবধূ খুন! পলাতক পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদন: মর্মান্তিক  এই ঘটনাটি ঘটেছে চাকদহ পালপাড়ার ব্যাঙপাড়া এলাকায়।হালিশহর মেলপুকুর পাড়ের মেয়ে  মনিষা দাস। বয়স মাত্র ১৯ বছর। মনীষার বাবা নেই। মামার বাড়িতে মানুষ। চলতি বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি,  পালপাড়ার রাকেশ মল্লিকের সঙ্গে বিয়ে হয় মনিষার ।তবে বিয়ের ১০ মাসের মধ্যে হল এমন পরিনতি।

পালপাড়ার যুবক রাকেশ মল্লিকের সঙ্গে হালিশহরের সুন্দরী তরুণী মনীষার  আলাপ হয় ফেসবুকে।৩০ বছর বয়সী রাকেশ কর্মসূত্রে চেন্নাইতে থাকেন। দু’‌জনের সম্বন্ধ পোক্ত করতে এগিয়ে আসেন হালিশহর নবনগরের বাসিন্দা রাকেশের দিদি। ফেব্রুয়ারি মাসে  রাকেশের সাথে মনীষার বিয়ে দিয়ে দেন মামা–মাসিরা।

শনিবার দুপুরে মনীষার বাপের বাড়িতে খবর দেওয়া হয় মনীষা খুব অসুস্থ। তাঁকে চাকদহ হাসপাতালে ভর্তি করা হযেছে। তাঁরা যেন এখনই চলে আসেন। তাঁরা সেখানে দ্রুত পৌঁছে দেখেন, মনীষা মৃত অবস্থায় পড়ে আছে,তাঁর  দুই হাতের কলার বোন ভাঙা, সারা শরীরে মার ধরের দাগ।  শ্বশুরবাড়ি থেকে জানানো হয়, মনীষা আত্মহত্যা করেছেন।অবশ্য মৃতের পরিবারের দাবি, তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন না। ওকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হযেছে।ইতিমধ্যে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।তবে এখনও পর্যন্ত  রাকেশের মা, বাবা ও দিদি, জামাইবাবু পলাতক। 

 

You may Like this:

চাকদহে করোনা রোগীর সন্ধান! তৎপর প্রশাসন, চলছে থার্মাল স্ক্যানিং
করোনা আবহে রক্তের চাহিদা মেটাতে এগিয়ে এল চাকদহ ধনিচা হাইস্কুল
চুপিসারে মধ্যবিত্তদের ত্রান পৌছে দিচ্ছে অভিযান অ্যাসোসিয়েশন
চাকদহ প্রশাসনের উদ্যেগে কবিগুরুর ১৫৯তম জন্ম শতবার্ষিকী পালন
আজ থেকে মদ্যপায়ী প্রানীদের জন্যে চাকদহেও খুলবে মদের দোকান
করোনা মোকাবিলায় চাকদহ হাসপাতালের পাশে মন্ত্রী রত্না ঘোষ কর
চাকদহ ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকার ছাত্র ছাত্রীদের জন্য সুখবর
ভিন রাজ্যে থাকা চাকদহের অসহায় শ্রমিকদের পাশে সাধন বিশ্বাস
করোনার রেডজোন এলাকা থেকে চাকদহে পালিয়ে এল এক ব্যাক্তি
খাদ্র সামগ্রী দিয়ে গরীবদের পাশে দাঁড়ালো ধনিচা স্কুলের প্রাক্তনীরা