২রা মে বন্ধ হতে চলেছে ভোটগণনা

গোটা দেশে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। রাজ্যও ব্যতিক্রম নয়। করোনার বাড়বাড়ন্ত দেখে প্রথমে বাকি তিন দফা অর্থাৎ ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম দফা একসঙ্গে করানোরা আর্জি জানিয়েছেন তৃণমূল। কিন্তু সেই আর্জি খারিজ করে দেয় নির্বাচন কমিশন। এরপর আবার শেষ দু’‌দফা একসঙ্গে করানোর আর্জি নিয়ে কমিশনের দ্বারস্থ হয় তৃণমূল। কিন্তু কমিশন আবারও না বলে দেয়।পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে তৃণমূল সুপ্রিমো বাকি দু’‌দফার ভোট প্রচার ভার্চুয়ালি করার সিদ্ধান্ত নেন।

এদিকে সোমবারই আবার মাদ্রাজ হাইকোর্ট তীব্র ভর্ৎসনা করে কমিশনকে। প্রধান বিচারপতি সঞ্জীব ব্যানার্জি জানান, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য দায়ী নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকদের বিরুদ্ধে খুনের ধারায় মামলা করা উচিত বলেও মনে করেন প্রধান বিচারপতি। এমনকি কীভাবে ভোটগণনা হবে, তা নিয়ে নীলনকশা না পাঠালে ২ মে গণনা বন্ধ করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে মাদ্রাজ হাইকোর্ট।

আর আদালতের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি বলেছেন, ‘‌মাদ্রাজ হাইকোর্ট বলেছে নির্বাচন কমিশন দায় এড়াতে পারে না। আমি অনেকবার বলেছি, কমিশনকে বিভিন্ন দফার ভোটকে একসঙ্গে যোগ করে ভোট করান। কমিশন শোনেনি। কী করে শুনবে?‌ ওদের তো বিজেপি–র কথা শুনতে হবে।’‌ মিনার্ভা থিয়েটারে শেষ নির্বাচনী জনসভায় মমতা বলেন ‘‌আমাদের এখন দু’দিকেই জ্বালা। একদিকে কমিশন সব জায়গা দখল করে রেখেছে। সেফ হাউস করতে পারছি না। কেন্দ্রীয় বাহিনীকে তিন মাস ধরে এখানে এনে জায়গা ভরিয়ে রেখেছে বিজেপি। কমিশনকে আমার অনুরোধ, দয়া করে এদের নিয়ে যান।’‌ আক্রমণাত্মক মমতা বলেন, ‘‌অনেক সহ্য করেছি, আর নয়। একজন প্রধানমন্ত্রী বিপর্যয় মোকাবিলা না করে বাংলা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। যার জন্য এই অবস্থা।’‌

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য