অবিশ্বাস্য!চাকদহ মুকুন্দ নগরে হঠাৎ দেখা গেল এলিয়েন স্পেসক্রাফট

নিজস্ব প্রতিবেদন: অবিশ্বাস্য এক ঘটনার সাক্ষী থেকে গেল চাকদহ মুকুন্দ নগর।ভিনগ্রহের প্রাণী বা ইউএফও নিয়ে এ যাবৎ যা যা শোনা গিয়েছে, তার সবটা সত্যি নয় বলেই দাবি বিজ্ঞানীদের। এ নিয়ে গবেষণাও জারি রয়েছে।প্রত্যেক বছর বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অজস্র ইউএফও (আন আইডেন্টিফাইড ফ্লাইং অবজেক্ট) দেখার রিাপোর্ট আসে যুক্তরাষ্টের ইউএফও রিপোর্টিং সেন্টারে। কখনো এরা অলোক বলয় আর কখনোবা অদ্ভুত আকৃতির স্পেসক্র্যাফট হিসেবে এরা ধরা দেয় মানুষের চোখে।তবে এরই মধ্যে হঠাৎই চাকদহ মুকুন্দ নগরে সন্ধ্যাবেলায় ইউএফও-এর দেখা মিলল।ঘটনার সাক্ষী রয়েছেন এলাকাবাসী।ক্যামেরা বন্দী হয়েছে সেই ভিডিও।

এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় মূহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে এই খবর।ইউএফও দেখার ভিড় পড়ে যায় মুকুন্দ নগর এলাকায়। ইউএফও-এর ইতিহাসে সবচেয়ে আলোচিত আজকের মুকুন্দ নগর এলাকার ঘটনা।আজই এপ্রমাণিত হয়ে গেল লিয়েন শুধু সিনেমা বা ফিকশনে সীমাবদ্ধ নয়।পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায় যে বেশিরভাগ ইউএফও-ই কোন পার্থিব বস্তু যাকে দর্শনকারীরা বিভিন্ন কারণে চিহ্নিত করতে না পেরে ইউএফও হিসেবে ভুল করেছেন। তবে শতকরা প্রায় তিন বা চার ভাগ ইউএফও-এর কোন বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা মেলেনি। যেমন আজকের ঘটনা।

সাধারণ মানুষদের অনেকেই যেভাবে মনে করছেন যে এলিয়েনরা বিভিন্ন সময়ে আমাদের পৃথিবীতে আসছে এবং আমাদের কার্যকলাপের খোঁজ খবর রাখছে, বিজ্ঞানীরা ঠিক সেভাবে ভাবতে পারছেন না। এর মানে এ নয় যে এলিয়েনের অস্তিত্বের ধারণার সাথে তারা একমত নন বরং সময়ের সাপেক্ষে মহাশূন্যে অনেক এলিয়েন সভ্যতা খুঁজে পেতে তারা আশাবাদী।কেমন লাগল আমাদের এই প্রতিবেদন ? এপ্রিল ফুল উপলক্ষ্যে আপনাদের বোকা বানানোর আমাদের একটি প্রচেষ্টা।ভালো লাগলে পোস্টটি শেয়ার করে আপনার বন্ধুদের বোকা বানিয়ে দিন।

 

You may Like this: