নদীয়ায় বিধানসভার একটিও আসন পাবে না তৃণমূল, দাবি মুকুল রায়ের

বঙ্গ সফরে এসে বীরভূম জেলার বোলপুরে রোড শো করেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। সেই জনসমাগম দেখে উচ্ছ্বসিত বঙ্গ বিজেপির নেতারা। অমিতের পালটা মমতার সভায় আরও অনেক বেশি লোক নিয়ে আসার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

কেষ্টর সেই দাবিকে কটাক্ষ করেছেন  মুকুল রায়।সোমবার সন্ধ্যায় নদিয়ার কৃষ্ণনগর রাজবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় সোনার বাংলা নবদ্বীপ কনক্লেভ নামক এক আলোচনা সভায় হাজির ছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি মুকুল রায়। কার্যত সরাসরি তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন ঘাস ফুলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।তিনি বলেছেন, “স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বোলপুরের রোড শো-তে যে পরিমাণ জনসমাবেশ ঘটেছিলো এর থেকে বেশি জনসমাবেশ করতে গেলে মঙ্গল গ্রহ থেকে লোক আনতে হবে তৃণমূলকে।”

নির্বাচনে জয়লাভের প্রসঙ্গে নদিয়াতে মুকুলবাবু বলেছেন, “এই বার তৃণমূল নদিয়া জেলায় একটা আসনও ধরে রাখতে পারবে না।”প্রসঙ্গত বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি দাবি করেছেন, ২৯ ডিসেম্বর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাতে দুই লক্ষ মানুষের সমাগম হবে। সোমবার নবান্ন থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ২৯ তারিখ রবীন্দ্র সংস্কৃতি অবমাননার প্রতিবাদে রাঙামাটিতে মিছিল হবে। সেখানকার মানুষরাই মিছিলে সামিল হবেন। বেলা ১২টা থেকে এই কর্মসুচি হবে। তবে দুপুর একটু বাড়লে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেখানে উপস্থিত হবেন বলেও জানিয়েছেন।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য