লকডাউনের স্মৃতি, রাস্তার ধারে পড়ে পরিযায়ীদের হাজারখানেক বাইক-সাইকেল

গতবছরের লকডাউনের স্মৃতি উস্কে দিয়ে এইভাবেই হাজার হাজার সাইকেল ও মোটরবাইক রোদে ও জলে  নষ্ট হচ্ছে। এমনকি হয়তো অনেকগুলো চুরিও হয়েছে। তবে তাতে প্রশাসনের কোনও হেলদোল নেই। দাঁতনের শান্তানগরের এই ঘটনা যারা জানেন তারা কষ্টটা উপলব্ধি করতে পারছেন কিন্তা যারা জানেন না তারা এই বাইকগুলি, সাইকেলের স্তুপ দেখে অবাক হচ্ছেন।

গত বছরের ২৪শে মার্চ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন। পরের দিন থেকেই পুরো দেশ থমকে যায়। জাতীয় সড়ক, রেলপথ দিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকেরা পায়ে হেঁটে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্য বেরিয়ে পড়েন। অনেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে সাইকেল ও বাইকে করে নিজ নিজ রাজ্যে ফিরেছেন। সেখান থেকেই দাঁতনের শান্তানগরে পড়ে থাকা সমস্ত বাইকের সাথে যোগসূত্র।

এই শ্রমিকেরা খড়গপুর হয়ে ওড়িশা, অন্ধ্র ও তামিলনাড়ু থেকে ফিরে এসেছিল। প্রশাসন এই শান্তনগরে তাদের থামিয়ে দেয়। ভিন রাজ্যের এই শ্রমিকদের করোনা পরীক্ষা করে প্রশাসন তাদের বাস ও ছোট গাড়িতে করে বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করে। ফলস্বরূপ, বাইক এবং সাইকেলগুলি শান্তনগরে ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছিল তারা। তখন থেকেই এই সাইকেল, বাইকগুলি জাতীয় সড়কের পাশে মাটিতে পড়ে আছে।

এই ছবি দেখলেই স্থানীয়দের গত বছরের লকডাউনের ছবি মনে পড়ে যায়। এমনকি এলাকার লোকজন প্রশাসনকে দাবি জানিয়েছেন এই সাইকেল ও বাইক যেন তাদের মালিকদের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। জানা যায় যে মহকুমা শাসক এই সাইকেল এবং বাইক সম্পর্কে কিছুই জানেন না।তিনি জানিয়েছেন “আমি পুলিশকে বলেছিলাম যে যানবাহনগুলি ভাল অবস্থায় রাখা উচিত। যদি কেউ যথাযথ প্রমাণ সহ যানবাহন দাবি করে তবে তা মালিকের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।”

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
১৫০টির বেশি পরিবারের হাতে ত্রান তুলে দিলেন শালতোড়ার বিধায়ক চন্দনা বাউড়ি
পাগল ছাড়া মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে কেউ বিশ্বাস করেননা - মমতাকে ফের আক্রমণ দিলীপের
‘কালো কুকুর চিৎকার করে’, ধনখড় প্রসঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্য মদন মিত্রের
"কে সুজাতা? কোনো স্ট্যান্ডার্ড নেই। পাগলের মত সবসময় বকে যায়।"-বৈশাখী
‘আমরা কর্মীদের নিরাপত্তা দিতে পারছিনা, তাই দল ছেড়ে যাচ্ছে’ : দিলীপ
কালিয়াচক কাণ্ডে নয়া মোড়! ক্রমশ রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে
বাংলায় চাকরি নেই, তাই মানুষ গুজরাত-মহারাষ্ট্রে ছুটছে: দিলীপ