বাংলায় চাকরি নেই, তাই মানুষ গুজরাত-মহারাষ্ট্রে ছুটছে: দিলীপ

এত মিছিল মিটিং, এত সমাগম করেও বাংলায় দখলে রাখতে পারেনি ভারতীয় জনতা পার্টি। ঘুরে ফিরে সেই বাংলার ক্ষমতা আসে তৃণমূলের হাতেই। তবে ক্ষমতা তৃণমূলের হাতে থাকলেও শিরোনামে থাকেন বঙ্গ বিজেপি সভাপতি তথা মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ।

কখনও কখনও মুখ্যমন্ত্রীকে প্রশ্ন করে,আবার কখনও নিজের মন্তব্যের জেরে তিনি সর্বদাই লিস্টে সবার ওপরে থাকেন। ভোটপর্বের শেষে বেশ কয়েকদিন তাকে নজরে না পেলেও বেশ কয়েকদিন ধরে তিনি ফের সকলের সামনে আসছেন। এদিন সকালেও তিনি নিউটাউন ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমণে আসেন।এদিনও বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। রাজ্যে চাকরির অভাব দেখা দিয়েছি। শিক্ষক শিক্ষিকারা পথে নেমেছেন। রাস্তায় রাস্তায় চলছে তাদের বিক্ষোভ আন্দোলন। বার বার কথা দিলেও কথা রাখছেন না রাজ্য সরকার। পরীক্ষা দিয়েও কেনও বহু যুবক যুবতীরা বেকার হয়ে পড়েছেন। তবে এবার আশার আলো দেখিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে বড় ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা প্রসঙ্গে এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, “বার বার কথা দিয়েও তিনি কথা রাখেননি। তিনবার শুধু প্রতিশ্রুতি দিয়েই মাননীয় ভোটে জিতেছেন, কাজে কিছুই করেননি। যেখানে সাত লক্ষ সরকারি কর্মচারীর সংখ্যা ছিল, এখন সেটা সাড়ে তিন-চার লক্ষে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। পদ খালি কেন? বাংলায় চাকরি কই? আবার ভাণ্ডারে টাকাও নেই! তাহলে কি করে মাননীয় ৩০ হাজার শিক্ষককে টাকা দেবেন?”

তিনি আরও বলেন, “পুরো প্রশাসন এখন প্রাইভেট ও কন্টাক্ট কর্মচারীদের নিয়ে চলছে। এই রাজ্যে চাকরি নেই বলেই তো বাংলার যুবকদেরকে গুজরাত, মহারাষ্ট্রে যেতে হচ্ছে। রাজ্যের উন্নয়ন কারা করবে? কিছু দুর্নীতিগ্রস্ত লোক? রাজ্য সরকারের উচিত এবার শুধু প্রতিশ্রুতি না দিয়ে চাকরি দেওয়া।”এছাড়াও সকল অবিজেপির দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে এই নিয়ে বৈঠক করতে চলেছেন ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর। যা নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেছেন, “এরকম অনেক ফ্রন্ট আমরা দেখেছি কিন্তু শেষমেশ মোদীর ফ্রন্ট ই থাকবে। সবাই ধীরে ধীরে আঞ্চলিক পার্টি তে পরিণত হচ্ছে। বিজেপি রয়েছে, বিজেপির বিকল্প। তাই বিরোধী হিসাবে বিজেপিকেই তারা চিহ্নিত করেছেন।”

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য