চোর, লম্পটদের জন্য হার বিজেপির, তথাগতর নিশানায় দিলীপ, কৈলাসরা

সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হারের পর থেকেই গর্জে উঠেছেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথাগত রায়। বাংলায় দলের এতবড় হারের জন্য তিনি নিশানা করছেন এ রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকদের এবং বঙ্গ বিজেপির সভাপতিকে। কৈলাস বিজয়বর্গীয়, শিবপ্রকাশ, অরবিন্দ মেনন, দিলীপ ঘোষেদের জন্যই দলের আজ এই খারাপ অবস্থা, দাবি তথাগত রায়ের। দলের নেতাদের সম্পর্কে প্রকাশ্যে কটূ মন্তব্য করায় তাঁকে দিল্লিতে ডেকে পাঠিয়েছেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব।

কিন্তু এখনই দিল্লি যাওয়া হচ্ছে না তাঁর। করোনা আক্রান্ত হয়ে আপাতত আইসোলেশনে রয়েছেন তিনি। সুস্থ হয়ে ওঠার পর দিল্লি যাবেন বলে জানান তিনি। লিখিত অভিযোগ জমা দেবেন। তাই আপাতত ঘরে বসেই শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে লিখছেন চিঠি। চিঠিতে তিনি এ রাজ্যের দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতাদের বিরুদ্ধে সমস্ত অভিযোগ তুলে ধরবেন। যেভাবে ভোটের আগে অন্য দল থেকে চোর, লম্পট, দুশ্চরিত্রদের বিজেপিতে যোগদান করানো হয়েছে তা নিয়ে রীতিমতো গর্জে উঠেছেন ত্রিপুরা, মেঘালয়ের প্রাক্তন রাজ্যপাল। সেলেব অভিনেত্রীদের বিজেপিতে যোগ দেওয়া এবং ভোটে টিকিট পাওয়া নিয়েও তিনি আপত্তি জানিয়েছেন। ‘নগরীর নটী’ বলে কটাক্ষ করেছেন শ্রাবন্তী, পায়েল এবং তনুশ্রীকে। সঙ্ঘ পরিবারের প্রতি আস্থা রয়েছে তথাগত বাবুর। তাঁর কথায়, সঙ্ঘ পরিবারের নির্দেশ সঠিকভাবে পালন করা হয়নি। তাই তো রাজ্যে বিজেপির এই ভরাডুবি। যা নিয়ে তথাগত রায়ের বিরুদ্ধে দলের রাজ্য নেতাদের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন পায়েল, তনুশ্রী, শ্রাবন্তীরা।

যদিও তথাগত রায়ের এহেন আচরণ নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তথাগত রায় যা বলছেন তা দলের শীর্ষ নেতৃত্ব দেখছেন যা বলার তারাই বলবে, জানালেন দিলীপ ঘোষ। তবে ভোটে হারার পর থেকেই বিজেপির অন্দরেও ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে। বিজেপির আদি কর্মীদের কথায়, সেলেবদের দলে নেওয়া কিংবা তৃণমূল থেকে অত নেতাদের দলে নেওয়া ঠিক হয়নি। মানুষ সেগুলো ভালোভাবে নেয়নি। তাই এতবড় হার। এখন দেখার দিল্লির শীর্ষ নেতৃত্ব তথাগত রায়ের কথা শুনে নতুন কোনও সিদ্ধান্তের পথে হাঁটেন কিনা। নাকি দিলীপ ঘোষ, কৈলাস বিজয়বর্গীয়দের উপরই ভরসা করে দল চালানোর ভার দিয়ে রাখেন, সেই দিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য