বাংলাকে বাঁচাতে রাজ্যেকে মোদীজি’র হাতে তুলে দিতে হবে, বললেন শুভেন্দু অধিকারী

সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। দলবদলের পর নিজের এলাকায় সভার পর এবার পাশের জেলার দাঁতনে দাঁড়িয়ে তিনি আবার বললেন, ‘বাংলাকে মোদীজি’র হাতে তুলে দিতে হবে। নাহলে বাংলা বাঁচবে না। উন্নয়ন হবে না। বাংলা ও দিল্লিতে একই দলের সরকার চাই।’ সেইসঙ্গেই তাঁকে তৃণমূলের বিশ্বাসঘাতক আক্রমণেরও জবাব দিয়েছেন তিনি।

শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘তৃণমূলের একজন সাংসদ বলেছে মেদিনীপুরে বিশ্বাসঘাতক জন্ম নেয়। আমি বলি বর্ণ পরিচয়ের জনক বিদ্যাসাগর এখানে জন্মান, ক্ষুদিরাম বসু, মাতঙ্গিনী হাজরা, প্রথম তাম্রলিপ্ত সরকার সবই তো মেদিনীপুরের। এই লড়াই আসলে জেলার সঙ্গে দক্ষিণ কলকাতার। ৪০ জন মন্ত্রীর মধ্যে ১১ জন কলকাতার। আর আমরা জেলার যারা, তারা ফেলনা? এই লড়াই গ্রামের লড়াই, জেলার লড়াই।’পুরনো দল প্রসঙ্গে এদিন আরও আক্রমণাত্মক হয়েছেন শুভেন্দু।

তিনি বলেন, ‘আমি দলের ভিতরে ছিলাম, আমার ঘেন্না ধরে গিয়েছে। কীভাবে কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলোর নাম বদলেছে। একজন সবুজসাথী সাইকেল নিয়ে বলেছে, কী সাইকেল! ভাঙা সাইকেল সারাতে ৪০০ টাকা গিয়েছে। ফের পরিবারতন্ত্রের কথা উল্লেখ করে এদিন জোর গলায় শুভেন্দু বলেন, ‘আমি আপনার জামাই যুব তৃণমূল নেতাকে বলিনি। আমি সৌগত রায়ের দাদা প্রাক্তন রাজ্যপালের কথা বলিনি। আমি ভাইপোর কথা বলেছি। পুলিশ দলদাস ছিল, এখন ক্রীতদাসে পরিণত হয়েছে।

 

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য