করোনা পরিস্থিতিতে মুসলিম চাষিদের সঙ্গে খেতের কাজে RSS

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনা মোকাবিলায় সারা দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন।এমতাবস্থায় দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে চাষী ভাইদের।কেননা লকডাউনে শ্রমিক, দিনমজুরদের দেখা নেই।ফলে মাঠের ধান মাঠেই নষ্ট হচ্ছে।এই পরিস্থিতিতে তাদের পাশে এসে দাড়াল বনগাঁর চাঁদা এলাকার রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবকের সদস্যরা। সংখ্যালঘু চাষি ভাইদের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে ফসল তোলার কাজ করছেন তারা।জানা যাচ্ছে, বনগাঁ থানা অন্তর্গত গাঁড়াপোতা এলাকার ভাগচাষি আলম মণ্ডল ধান কেটে ছিলেন বৃষ্টির আগে। তবে বৃষ্টির জেরে মাঠেই  ভিজছে পাকা ধান।

এরপর ভাগচাষি আলম মণ্ডলের এই অসহায় অবস্থা দেখে এগিয়ে আসে আরএসএসের সদস্যরা।এই অবস্থা শুধু ভাগচাষি আলম মণ্ডলের নয়, সমস্যায় পড়েছেন এলাকার অন্যান্য সংখ্যালঘু চাষীরা।এমতাবস্থায়  তাদের সকলের পাশে এসে দাড়িয়েছে বনগাঁ গ্রামীণ খণ্ডের স্বয়ংসেবক বিশ্বজিৎ গাইন, গোবিন্দ বিশ্বাস, ভবতোষ বিশ্বাস, প্রশান্ত মণ্ডল, অর্জুন বিশ্বাস, প্রবীর সরকাররা।এমতাবস্থায় লকডাউনের মতো এই কঠিন পরিস্থিতিতে এলাকার স্বয়ং সেবক দলের সদস্যদের মাঠে ফসল তোলার কাজে পেয়ে খুশি হয়েছেন এলাকার মুসলিম চাষীরা।

এ প্রসঙ্গে  স্বয়ংসেবক বিশ্বজিৎ গাইন জানান, কিছু ভাগচাষি দিনমজুরের অভাবে ধান কেটে বাড়ি নিতে পারছিল না। তাই তাঁদের  একটু সহযোগিতা কবার চেষ্টা করেছি। আরও এক স্বয়ংসেবক তথা বিজেপি নেতা গোবিন্দ বিশ্বাস বলেন, চাষিরা এসে বলেন  ওদের কাছে  টাকা নেই, এমনকি  দিনমজুরও পাওয়া যাচ্ছে না। তাই আমরা ওদের পাশে দাঁড়িয়েছি। বিপদের সময় জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে মানুষের পাশে দাঁড়ানোটাই আমাদের কাজ।

 

You may Like this:

CESC'র সঙ্গে মমতার 13000 কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ মুকুলের
আমফান বিপর্যয় মোকাবেলায় মমতা নয়, মোদির উপর আস্থা অধীরের
আসছে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দল, রাজ্যকে আরও আর্থিক সহায়তা কেন্দ্রের
যান্ত্রিক ত্রুটি নয়, রাজরোষে বন্ধ কলকাতা নিউজ! জানাল চ্যানেল কর্তৃপক্ষ
চোখ রাঙাচ্ছে আমফান, ২১ বছর পর ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি !
অভিনব উদ্যেগ, যাদবপুরে বিনা পয়সায় চালু সিপিএমের সব্জি বাজার
ভোট হলেই পরিযায়ীরা মূখ্যমন্ত্রীকে বহিস্কার করবে, বিস্ফোরক ভারতী
মূখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রীয় অনুদান খরচের হিসাব দেন না, অভিযোগ দিলিপের
সিপিএমের কাছে শেষ পর্যন্ত মাথা নোয়াতে বাধ্য হল নব্বান্ন
কোলকাতায় শুরু হতে চলেছে মেট্রো পরিষেবা