রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদন: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ(ডাকসু) নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ দেখায় শিক্ষার্থীদের একাংশ। বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেওয়াদের একজন রোকেয়া হলের শিক্ষার্থী সায়েদা আফরিন  জানান, ছাত্রলীগের ইন্ধনেই ওই মামলা করা হয়েছিল। তাঁরা রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষ জিনাত হুদার পদত্যাগ দাবি করে বিক্ষোভ করছেন। ‘এক দাবি, পদত্যাগ’ বলে স্লোগান দিচ্ছেন তাঁরা।

মঙ্গলবার রাত ১টা পর্যন্ত এই বিক্ষোভ চলেছে। অভিযোগ,গত সোমবার নির্বাচনের দিন দুপুরে রোকেয়া হলের একটি কক্ষে সিলগালা করা ব্যালট পেপার গোপনভাবে রাখা হয়েছে।খবর পেয়ে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ থেকে ডাকসুর ভিপি প্রার্থী নুরুল হক নুর ও পরিষদের কয়েকজন সদস্য হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক জিনাত হুদার কাছে যান। পরে ক্ষুব্ধ হয়ে তাঁরা ওই কক্ষের দরজা ভেঙে ভেতর থেকে ট্রাঙ্কগুলো বাইরে নিয়ে আসে।

ট্রাঙ্কের ভেতরে থাকা সিলগালা করা ব্যালট পেপারের প্যাকেট থেকে ব্যালট পেপার বের করে ছড়িয়ে ছিটিয়ে দেয়।উল্লেখ্য ,এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আবাসিক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃত্যকলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী মারজুকা রায়না  ডাকসুর নবনির্বাচিত সহসভাপতি(ভিপি) নুরুল হক নুর সহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে প্রাধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত ও হলে ভাঙচুর করার অভিযোগ এনে শাহবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করেছিলেন।