অর্থনৈতিক সংকট, G-২০ দেশের সামনে হাত পাতল পাকিস্তান

নিজস্ব প্রতিবেদন: ফের একবার হাত পাতল পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।এবার অর্থনৈতিক সংকটের অজুহাত দিয়ে G-২০ দেশের থেকে অর্থ সাহায্যের জন্যে লিখিত আবেদন জানাল পাক সরকার। তাদের বক্তব্যে, দুর্বল অর্থনীতির কারণে করোনা ভাইরাস  মোকাবিলা করা তাদের পক্ষে অসম্ভব হয়ে উঠছে। তবে জি-২০ দেশ এইবার সরাসরি পাকিস্তানকে আর্থিক সহায়তা করবে কিনা তা নিয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয় নি।

 পাকিস্তানের অর্থ মন্ত্রালয়ের বিশিষ্ট আধিকারিক জানিয়েছেন, করোনা মোকাবিলায় G-20 দেশগুলো থেকে অর্থ সাহায্যের জন্য পাক সরকারের পক্ষ থেকে আলাদা আলাদা ভাবে চিঠি পাঠিয়ে আবেদন জানানো হয়েছে।যদিও এর আগে G-20-এর সদস্যরা গত ১৫ ই এপ্রিলের বৈঠকে করোনা  সংকটের মধ্যে  পাকিস্তান সহ আরও ৭৬ টি দেশকে সাময়িক কর মুক্তি দিয়েছে। এই কর ২০২০ সালের মে মাস থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত  ছাড় দেওয়া হয়েছে ।

বলা বাহুল্যে, এই প্রথম নয়, এর আগে এমনকি ভারতের থেকেও অর্থ সাহায্য চেয়েছিল পাকিস্তান। আসলে করোনা সংকটের মোকাবিলা করার জন্য ভারত সরকার সার্ক অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোকে একটি অর্থের ফাণ্ড গঠন করতে পরামর্শ দিয়েছিল। সেই মতো সার্ক দেশগুলোকে নিয়ে ফান্ড তৈরি হয়। ভারত সরকার সেই ফান্ডে অর্থ জমা দিলেও সেই ফান্ডে এক পয়সা দান করে না পাকিস্তান। অথচ পাক সরকার সেখান থেকে অর্থ সাহায্য দাবী করে।

 

You may Like this:

সাম্প্রদায়িক হিংসা ছড়ানোয় জরিমানা জাকির নায়েকের ‘পিস টিভি’কে
করোনার আবহে ৯৯ বছর বয়সেও রোগী দেখছেন যে ডাক্তার
মারা গেলেন প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া মহিলা ! নেটদুনিয়া তোলপাড়
কিট ছাড়াই অনুসন্ধান কুকুর করবে করোনা টেস্ট, চলছে গবেষণা
হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন প্রয়োগে হিতে বিপরীত, দাবি মার্কিন গবেষকদের
করোনা বিধ্বস্ত অ্যামেরিকায় ত্রান বিলির নেতৃত্বে RSS
পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কোয়ারেন্টাইনে, করা হল করোনা টেস্ট
চিনকে হুঁশিয়ারি, করোনার জন্য দোষী প্রমানিত হলে ফল ভুগতে হবে
করোনা নির্মূলে ২০২২ পর্যন্ত প্রয়োজন সোশ্যাল ডিস্টানসিং, বলছে গবেষণা
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে আর্থিক সাহায্য করা বন্ধ করে দিল অ্যামেরিকা