corona kolkata

টার্গেট ২০২১, তৃণমূল কংগ্রেসের নয়া কর্মসূচি বাংলার গর্ব মমতা

corona kolkata

নিজস্ব প্রতিবেদন: ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে ভোট বৈতরণী পার করতে মমতা ব্যান্ডের উপর ভরসা রেখেই তৃণমূলের তরফে নেওয়া হল নয়া কর্মসূচি বাংলার গর্ব মমতা।সোমবার সকালে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেন মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে বলা হয়েছে ৭৫ দিন ধরে মোট তিনটি পর্যায়ে হবে এই কর্মসূচি। জানা যাচ্ছে এই কর্মসূচির মাধ্যমে দলের ৭৫ হাজারেরও বেশি নেতা কর্মী রাজ্যের প্রায় আড়াই কোটি মানুষের কাছে পৌছে যাবেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  এতদিন  যেসব রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, বিভিন্ন জনসভায় উল্লেখযোগ্য যা বলেছেন সব একত্রিত করে ভিডিও ট্রেলার বানিয়ে চালানো হবে সর্বত্র।

প্রত্যেকটি এলাকায় জনজাতির ভিত্তিতে আলাদা করে সভা, সম্মেলন চলবে। প্রথম পর্যায়ে ৭ মার্চ থেকে ১৫ তারিখ, দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০ মার্চ থেকে ১৯ এপ্রিল এবং তৃতীয় পর্যায়ে ২০ এপ্রিল থেকে ১০ মে পর্যন্ত প্রচার চলবে।গৃহীত হবে স্বীকৃতি সন্মেলন, যেখানে দলের পুরনো কর্মীদের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেওয়া হবে।সংহতি সভা কর্মসূচির মাধ্যমে ২৭৭ টি বিধানসভা কেন্দ্রে তফসিলি জাতির সদস্যদের জন্য বিশেষ সভা করা হবে এবং চেতনা সভার মাধ্যমে ৯৭ টি বিধানসভা কেন্দ্রের তফসিলি উপজাতিদের সঙ্গে জনসংযোগ বাড়ানো হবে।বাংলার বার্তা কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ৩৫০০ পঞ্চায়েত ও পুরসভা এলাকায় জনসভা।নবীন বরণ সভার মাধ্যমে ১ লক্ষ যুবককে নিয়ে ২০ হাজার জনবসতি এলাকায় যুবদের একত্রিত করে দলে যোগদান করার কর্মসূচি পালন করা হবে।

এছাড়াও ২৯৪ বিধানসভায় ১৫ হাজার মহিলাকে বিশেষ সম্মান প্রদান করা হবে।দ্বিতীয় পর্যায়ে  ২০ মার্চ থেকে জনবসতিপূর্ণ এলাকায় হবে বঙ্গধ্বনি যাত্রা। তৃতীয় পর্যায়ে হবে তৃণমূল পদাতিক সম্মেলন, যেখানে ১৫০০ কিমি পদযাত্রা ও বুথ কর্মী সম্মেলন হবে।এই কর্মসূচির প্রধান উদ্দেশ্যে দেশের বড় নেত্রী হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইমেজ ছড়িয়ে দেওয়া । তবে তৃণমূলের নেওয়া এই বাংলার গর্ব মমতা কর্মসূচি কতটা সফল হয় বা ভোট বাক্সে তা কতটা প্রতিফলিত হয়, সেটাই দেখার বিষয়। অবশ্য এটা স্পষ্ট  বিজেপির পক্ষে সহজ হবে না ২০২১ এর নির্বাচন।

 
0