শুভেন্দুর ভয়ে নন্দীগ্রামে যাচ্ছেন না মমতা, ভোটের আগে রাজনৈতিক উত্তাপ চরমে

আগামী ৭ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা আপাতত বাতিল করা হয়েছে। তৃণমূল সূত্রে খবর, ওই দিন নন্দীগ্রামে কর্মিসভা হবে, তবে সেখানে থাকবেন না দলের সুপ্রিমো। তাঁর পরিবর্তে ওই সভায় থাকবেন দলের সুব্রত বক্সি। থাকতে পারেন অন্যান্যরাও। কী কারণে সভাটি বাতিল হল, তা নিয়ে কোনও ইঙ্গিত মেলেনি দলীয় সূত্রে। পরে ফের কবে নন্দীগ্রামে সভা করবেন তৃণমূল সুপ্রিমো, স্থির হয়নি তাও। প্রতি বছর ৭ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে শহিদ দিবস’ হিসেবে পালিত হয়।

এতদিন এই দিনটিতে সরকারের তরফে উপস্থিত থেকে গোটা বিষয়টি পরিচালনা করতেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি নন্দীগ্রামের সদ্যপ্রাক্তন বিধায়কও। কিন্তু এ বছর সেই ছবি পালটেছে। তৃণমূলের সঙ্গে দু’দশকের সম্পর্ক ছিন্ন করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শুভেন্দু। আর তারপরই মুখ্যমন্ত্রী ঠিক করেছিলেন, এ বছর ৭ জানুয়ারি তিনি নিজেই নন্দীগ্রামের ওই সভায় উপস্থিত থাকবেন। সেইমতো ঠিক পরেরদিন অর্থাৎ ৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে সভা করার পরিকল্পনা ছিল বিজেপি নেতা শুভেন্দুর।

রাজনৈতিক মহলের একাংশের মত, ভূমিপুত্রকে দিয়ে নন্দীগ্রাম আন্দোলনকে কাজে লাগাতে চায় গেরুয়া শিবির।  ইতিমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নন্দীগ্রামের সভা বাতিল প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ বলেছেন, আসলে ভয় পেয়েছেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। তাই তিনি জনসভা বাতিল করেছেন। আগামি দিনে তাকে আরও অনেক সভা বাতিল করতে হবে।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য