‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের

এবার কামারহাটির তৃনমূল বিধায়ক মদন মিত্র’র কটাক্ষের শিকার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। রাজ্যপালকে ‘পাগলা হাতি’র সঙ্গে তুলনা করে তৃনমূল নেতা বলেছেন, “রাজভবনের গরিমা উনি নষ্ট করছেন। উনি নিজের কাজ না করে ‘পরকীয়া’র দিকে বেশি নজর দিচ্ছেন।”গত সোমবার রাজ্যপাল বনাম মুখ্যমন্ত্রী সংঘাতের পর শাসকদলের সঙ্গে রাজ্যপালের বিরোধিতা আরও একবার প্রকাশ্যে এলো।মদন মিত্র জানিয়েছেন, রাজ্যপাল হিসেবে কর্তব্য পালন করার বদলে সরকারি কাজে হস্তক্ষেপ করছেন জগদীপ ধনখড়। এই ঘটনাকেই ‘পরকীয়ার দিকে নজর দেওয়া’ বলে মনে করছেন মদন। সীমারেখার বাইরে গিয়ে রাজ্যপালের করা মন্তব্যগুলি সংবিধানবিরোধী বলেও মনে করেন তৃণমূল বিধায়ক।

 

মদনের দাবি, “আমি মনে করি, তাঁর সাত দিনের মধ্যে রাজ্য থেকে চলে যাওয়া উচিত এবং উনি যাবেন।” রাজ্যপালের অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়ে তাঁকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন মদন, “আমার বা অন্য কোনও বিধানসভা এলাকায় যদি বিরোধীদের আক্রমণের একটিও নজিরের প্রমাণ উনি দেখাতে পারেন, তাহলে উনি যা শাস্তি দেবেন তা আমি মেনে নেব।”মদন আরও বলেছেন, “আমি বলব, ওঁর নিরাপত্তা বাড়ানো উচিত। জঙ্গলমহল থেকে অনেক হাতি চলে আসছে। তাই শহরে হাতি ঢুকে পড়লে বিপদের সম্মুখীন হতে পারেন তিনি। সেই কারণেই তাঁর নিরাপত্তা বাড়ানো উচিত বলে আমি মনে করি,” এই ভাষাতেই রাজ্যপালের বিরুদ্ধে আক্রমণ করেছেন মদন মিত্র।

রাজ্যপালের ভূমিকার সমালোচনা করে মদন মিত্র কলকাতা প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে জানিয়েছেন, ওঁর পদকে সম্মান জানিয়েই বলছি, এর আগেও অনেক রাজ্যপাল বাংলায় ছিলেন। কিন্তু বর্তমান রাজ্যপালের মতো নিজের যা কাজ তা না করে অন্যান্য বিষয়ের উপর বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন, এমন কিন্তু দেখিনি।”বিধানসভা নির্বাচনের পর বিপুল ভোটে জিতে আসা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে অপদস্থ করার যত চেষ্টাই রাজ্যপাল করুন না কেন, তা বিফলে যাবে বলেই মনে করছেন তৃণমূল বিধায়ক।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য
কাজ করছে না পঞ্চায়েত! চন্দনা বললেন 'আমার হাতে ছেড়ে দিন আমি একাই সামলে নেব"