শোভনকে ‘গ্ল্যাক্সোবেবি’ ও বৈশাখীকে ‘ফুলটুসি’ বলে কটাক্ষ কুণাল ঘোষের

বৈশাখীর ‘নামমিলান্তি’ এবং শোভনের ‘সম্পতিদান’-এর পর এই জুটি আবারও নেট দুনিয়ায় আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে উঠে এসেছে। একসময় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ শোভন-বৈশাখী জুটিকে বলেছিলেন, ‘ডাল-ভাত’। তবে এবার কুণাল ঘোষ শোভন-বৈশাখীকে ‘গ্ল্যাক্সোবিবি’ ও ‘ফুল টুসি’ বলে খোচা দিলেন। বুধবার সকালে শোভনের সাথে একটি নতুন অধ্যায় শুরুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের নাম পরিবর্তন করে ‘বৈশাখী শোভন বন্দ্যোপাধ্যায়’ রেখেছেন। যুগলের ছবি দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘আমি থেকে আমরার পথে যাত্রা শুরু।’ এরপর শোভন ঘোষণা করেন যে বৈশাখী তাঁর সমস্ত স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তির মালিক।

এরপর কুনাল ঘোষ টুইটারে শোভন-বৈশাখীকে ‘গ্ল্যাক্সোবিবি’ ও ‘ফুল টুসি’ বলে কটাক্ষ করেন। কুনাল লেখেন, গ্ল্যাক্সোবেবি কি নিজের পদবি ছেড়ে বন্দ্যোপাধ্যায় পদবি নিল নাকি? জামাইষষ্ঠীর দিন ডামি-জামাইয়ের এমন পদবিত্যাগ ও ফুলটুসিকে সম্পত্তিদান (?) সার্কাসের এক অপূর্ব ইভেন্ট। এদিন শোভন বলেছিলেন য়ে বৈশাখী তার খারাপ সময়ের পাশে থাকার জন্য তাকে সম্পত্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে শোভনের এই বক্তব্যকেও কটাক্ষ করে আরও একটি টুইট করেন কুনাল।

তিনি লেখেন, পাশে থাকার জন্য সম্পত্তিদান? বন্ধুত্বের বিনিময়মূল্য? ছি ছি। আমার জীবনের কঠিনতম দিনে যারা পাশে ছিল, তাদের তো কিছু দিলেও নেবে না। এর নাম বন্ধুত্ব, ভালোবাসা। নিঃস্বার্থে আগলে রাখা। সমাজে আসল বন্ধুদের ছোট করার কোনো অধিকার এই দুই বিকৃতমস্তিষ্কের নেই। তার এই টুইটের নীচে অনেকেই কমেন্ট করেছেন। কেউ লিখেছেন, প্রথমে শোভনবাবু বলতেন, এখন বলেন শোভন। কারও মন্তব্য, মাননীয় কুণাল দাদা ,, দিদি তো কন্যাশ্রী রূপশ্রী যুবশ্রী চালু করেছেন—- এবার কি এই জেঠু ও কাকিমা র জন্য ‘ প্রেমশ্রী ‘ চালু করতে পারেন না ? একজনের মতে, শোভনকে মেয়রের চেয়ে বৈশাখীর বর্তমান বলা ভাল। কারও আবেদন, তাদের আর দলে নেবেন না।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
১৫০টির বেশি পরিবারের হাতে ত্রান তুলে দিলেন শালতোড়ার বিধায়ক চন্দনা বাউড়ি
পাগল ছাড়া মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে কেউ বিশ্বাস করেননা - মমতাকে ফের আক্রমণ দিলীপের
‘কালো কুকুর চিৎকার করে’, ধনখড় প্রসঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্য মদন মিত্রের
"কে সুজাতা? কোনো স্ট্যান্ডার্ড নেই। পাগলের মত সবসময় বকে যায়।"-বৈশাখী
‘আমরা কর্মীদের নিরাপত্তা দিতে পারছিনা, তাই দল ছেড়ে যাচ্ছে’ : দিলীপ
কালিয়াচক কাণ্ডে নয়া মোড়! ক্রমশ রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে
বাংলায় চাকরি নেই, তাই মানুষ গুজরাত-মহারাষ্ট্রে ছুটছে: দিলীপ