আবারো কি তৃণমূলে ফিরছেন মুকুল রায়?বড় ইঙ্গিত দিলেন সৌগত রায়

তৃণমূলের একদা চাণক্য কি আবারও ফিরছেন তৃণমূলে? দিন কয়েক আগে থেকেই মুকুল রায়ের তৃণমূলে ফেরা নিয়ে জল্পনা দানা বাধতে শুরু করেছে। মুকুল রায়ের স্ত্রী বেশ কয়েকদিন হল অসুস্থ রয়েছেন করোনাভাইরাস এর জন্য। বিজেপি নেতারা খবর নিয়েছেন কতটা, সেটা জানা নেই কিন্তু রাজনৈতিক তফাৎ ভুলে তৃণমূলের নেতারা কিন্তু মুকুল রায়ের স্ত্রীর ব্যাপারে খোঁজ নিয়েছেন। তৃণমূলের বর্তমান সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় অ্যাপোলো হাসপাতালে গিয়ে সরাসরি কথা বলেছেন মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু রায় এর সঙ্গে। যদিও তারপরে বিজেপি নেতারা যোগাযোগ করেছিলেন মুকুল রায়ের সঙ্গে, কিন্তু জানা যায় সবার আগে খোঁজ নিয়েছিলেন কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তার পাশাপাশি শুভ্রাংশু রায় তার ফেসবুক পোস্টে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের প্রশংসা করে নিজের তৃণমূলে ফেরার জল্পনা আরো উস্কে দিয়েছিলেন। এই পরিস্থিতিতে বর্তমানে লাখ টাকার প্রশ্ন বিজেপির বর্তমান সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি এবং কৃষ্ণনগর উত্তর কেন্দ্রের বিধায়ক মুকুল রায় কি আবার তৃণমূলে ফিরতে চলেছেন? আজ এই প্রশ্নের উত্তর দিলেন দমদম লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ সৌগত রায়। সৌগত প্রকাশ্যে বলে দিলেন, তৃণমূল ত্যাগ করলেও শুভেন্দু অধিকারীদের মত মমতাকে নিয়ে বাজে কথা কখনো বলেননি মুকুল রায়। অর্থাৎ, প্রকারান্তরে তিনি বুঝিয়ে দিলেন মুকুল রায় যদি তৃণমূলে ফিরতে চান তাহলে তিনি ফিরতে পারেন, তৃণমূলের রাস্তা তার জন্য খোলা রয়েছে। যদিও, এই ইঙ্গিত শুধুমাত্র সৌগত রায় একা নন, খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেও দিয়েছেন। বঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেও বলেছিলেন, “মুকুল অতটা খারাপ নয়। ও কোন দিন বাজে কথা বলে না।”

মমতার ওই মন্তব্যের পরেই রাজ্য রাজনীতিতে মুকুল রায়ের অবস্থান নিয়ে দোলাচল শুরু হয়। কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে এবারে বিজেপির প্রার্থী হলেও মুকুল রায় এবারের নির্বাচনে কিছুটা নিষ্ক্রিয় ছিলেন। ভোটের ফল প্রকাশের পরেও বিজেপির বিভিন্ন মিটিংয়ে তিনি অনুপস্থিত। নিজের অনুগামীদের নিয়ে সল্টলেকের বাস ভবনে একাধিক বৈঠক করছেন মুকুল, কিন্তু দিলীপ ঘোষের ডাকা মিটিংয়ে মুকুল রায় গরহাজির। এমনকি, সম্প্রতি বিজেপির বিরুদ্ধে বিক্ষুব্ধ হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসা করা ডোমজুড়ের প্রাক্তন বিধায়ক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় যোগাযোগ রাখছেন মুকুল রায়ের সঙ্গে। এত জল্পনার মাঝেই সৌগত রায়ের বক্তব্য অত্যন্ত ইঙ্গিতবাহী বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।এদিন সৌগত রায় বললেন, “এমন বহু নেতা আছে যারা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে এবং তারা তৃণমূলে আবার ফিরতে চাইছে। এদের মধ্যে কেউ কেউ নরমপন্থী আবার কেউ চরমপন্থী। শুভেন্দু অধিকারীর মতো নেতারা যেখানে মমতাকে নিয়ে প্রকাশ্যে বাজে কথা বলেছেন সেখানে মুকুল রায়কে কিন্তু মমতাকে নিয়ে কখনো কটু কথা বলতে শোনা যায়নি।” রাজ্য রাজনীতিতে চিরকাল নরমপন্থী মনোভাবের অত্যন্ত চতুর রাজনীতিবিদ হিসেবে জনপ্রিয় মুকুল রায়। তাহলে কি এবারে মুকুল ফের ব্যাক টু দ্যা প্যাভলিয়ন? সৌগতর মন্তব্যে ইঙ্গিত কিন্তু স্পষ্ট। যদিও, মুকুল ফিরবেন কি না ফিরবেন এই সমস্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই। তাই তার মন্তব্যের মুখাপেক্ষী বর্তমানে রাজনৈতিক বিশ্লেষক থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ, সকলেই।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য