“পুনর্গণনার নির্দেশ দিলে প্রাণে মেরে ফেলা হতে পারে আমাকে”-বিষ্ফোরক তথ্য ফাঁস মমতার

নির্বাচনে প্রথম থেকেই বাংলা তথা সারা দেশের নজর নির্বাচনী কুরুক্ষেত্রের এপিসেন্টার নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্র। যেদিন থেকে মুখ্যমন্ত্রী খোদ ঘোষণা করেছিলেন ভাবছি এবার নন্দীগ্রাম থেকেই লড়বো, সেদিন থেকেই বহু বছর পর চর্চায় উঠে এসেছিলো মমতার ‘নন্দী মা’। তার পরেই শিলমোহর পড়ে শুভেন্দুর ইচ্ছায়। মাননীয়ার প্রতিপক্ষ হয়ে লড়তে। সেই সময় থেকেই গোটা রাজ্য শুধু নয়, গোটা দেশের চোখ ছিলো নন্দীগ্রামের ওপর।

অন্যথা হয়নি ভোট গণনার দিনেও। প্রতি পদে চরম উত্তেজনায় গেছে কাল সারাদিন। কোন রাউন্ডে শুভেন্দু এগিয়ে তো কখনো মমতা, বিকেল নাগাদ মমতাকে জয়ী ঘোষণা করা হলেও, কিছুউক্ষনের মধ্যে বদল ঘটে ফের। পুনর্গণনায় জানা জায় নন্দীগ্রামে জয়ী শুভেন্দু অধিকারী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তখনই আরো এক দফা  পুনর্গণনার কথা বললেও, কমিশনের তরফ থেকে জানানো হয় জয়ী শুভেন্দুই।

সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, ‘নন্দীগ্রামের মানুষের রায় মেনে নিচ্ছি। কিন্তু ওখানে ভোট লুঠ হয়েছে। আদালতে যাব আমরা।’ পুনর্গণনার দাবিতে এদিন সকালে নন্দীগ্রামের গড়চক্রবেড়িয়া ভূতা মোড়ে পথ অবরোধ করেন তৃণমূল কর্মীরা। যার জেরে বন্ধ হয়ে যায় নন্দীগ্রাম-সোনাচূড়া সড়কে যান চলাচল।  ঠিক তার পরই আজ নন্দীগ্রাম নিয়েই আরো একটি বিস্ফোরক ঘটনা সামনে আনলেন তৃণমূল সুপ্রিমো, “প্রাণনাশের হুমকি রয়েছে বলে পুনর্গণনার নির্দেশ দিতে ভয় পাচ্ছেন নন্দীগ্রামের রিটার্নিং অফিসার।

কালীঘাটে সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “কাল অনেক রাতে নন্দীগ্রামের রিটার্নিং অফিসারের একজনকে পাঠানো একটি মেসেজ আমার কাছে এসেছে। সেটাতেই স্পষ্ট যে ওখানে ঠিক কী হয়েছে।” রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে কোন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যাক্তির ম্যাসেজ সামনে আনেন, ‘‘বন্দুকের নলের মুখে কাজ করতে হচ্ছে। পুনর্গণনার নির্দেশ দিলে প্রাণে মেরে ফেলা হতে পারে আমাকে।’’ আজকের সাংবাদিক বৈঠক থেকে তিনি আরও একবার জানিয়েছেন ঘটনা নিয়ে আদালতে যাবেন তিনি। ততক্ষণ পর্যন্ত ভিভিপ্যাট, ব্যালট এবং ইভিএম আলাদা আলদা ভাবে সরিয়ে রাখতে হবে।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

বিজেপির শক্তি কমে যাচ্ছে বাংলার বিধানসভায়, শুরুতেই ইনিংসে ইতি দুই বিধায়কের
নিজের দলের সম্পর্কে বিষ্ফোরক অভিযোগ সুজাতা খাঁর, ঘাসফুলের নোংরা লোকদের জন্য হয়েছে তার হার
মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পরই ‘পদত্যাগে’র ঘোষণা মানসের, ফিরলেন চেনা মাটিতে
মতপার্থক্য! বালুমাটির শুভেন্দু বিরোধী দলনেতা হয়েই খারিজ করলেন লালমাটির দিলীপের তত্ত্ব
বিরোধী দলনেতা হয়েও মন ভালো নেই শুভেন্দুর, কারন‌ মমতার বাংলা ভালো নেই
কোন‌ পুরুষ না, মন্ত্রীসভায় জায়গা করে নিলেন‌ জঙ্গলমহলে তিন কন্যা
তবে কি ঝড়ে গেলো মুকুল?জায়গা করে নিলো শুভেন্দু
বিধায়ক হয়েই অশোক ভট্টাচার্যের বাড়িতে শংকর, পা ছুঁয়ে গুরুকে প্রণাম করলেন শিষ্য
চোর, লম্পটদের জন্য এতবড় হার বিজেপির।তথাগতর নিশানা থেকে বাদ গেল না দিলীপ,কৈলাসরা
কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপের প্রয়োজন নেই কোন, এতদিন অনেক করার জন্য ধন্যবাদ-সুর ছড়ালেন দিলীপ বাবু