ভোটের আগে মিথ্যে প্রচার, ক্ষমা চেয়ে তৃণমূলের হয়ে প্রচার BJP কর্মীদের

একুশের নির্বাচনে ফের একবার বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় ফিরেছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যের তিনটি আসন থেকে ৭৭ আসনে পৌঁছালেও ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন পূরণ হয়নি বিজেপির। তার জেরেই নির্বাচন-পরবর্তী হিংসার কারণে ঘরছাড়া হতে হয়েছে অনেক রাজনৈতিক কর্মীকে। বারবারই খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন তারা। কখনো তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে উঠেছে জরিমানা করার অভিযোগ, কখনো বা কান ধরে ওঠবস করানো হয়েছে বিজেপি কর্মীদের। এমনটাই বারবার অভিযোগ করেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। তবে এবার দেখা গেল কিছুটা উলটপুরান। ‘মিথ্যা প্রচার করেছিলাম’ বলে ক্ষমা চাইতে গ্রামবাসীর কাছে বের হলেন বিজেপি কর্মীরা। তবে এটি স্বতঃস্ফূর্ত ছিল কিনা তা বিচার্য বিষয়।

ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের লাভপুরে। এদিন বিজেপি কর্মীরা একটি টোটো ভাড়া করে মাইক হাতে প্রচারে বের হন। এদিন তাদের মুখে ছিল না কোনও দলীয় স্লোগান। টোটোতে বিজেপির দলীয় পতাকা লাগানো থাকলেও তাদের মুখে ছিল ক্ষমা প্রার্থনা। তারা বলেন, “আমরা বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির হয়ে তৃণমূলের নামে অনেক মিথ্যা প্রচার করেছি, যেটা ঠিক হয়নি। তার জন্য আমরা ক্ষমাপ্রার্থী। আমরা মানুষকে তৃণমূলের নামে ভুল বুঝিয়েছি। তাই আমরা গ্রামের মানুষের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী।”

শুধু গ্রামবাসী নয় স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ক অভিজিৎ সিংহের কাছেও ক্ষমা প্রার্থনা করেন ওই ৩০-৪০ জন বিজেপি কর্মী। এমনকি স্থানীয় বিধায়কের কাছে তাদের তৃণমূলে ফেরানোরও অনুরোধ জানান তারা। আজ তাদের মুখে ছিল “মা মাটি মানুষ জিন্দাবাদ”, “মমতা ব্যানার্জি জিন্দাবাদ” স্লোগান। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনা দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে সকলের। একুশের নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হলেও তেমনভাবে বড় ছাপ ফেলতে পারেনি বিজেপি। তার জেরে ইতিমধ্যেই দলের মধ্যেও শুরু হয়েছে ছোট ছোট গৃহযুদ্ধ। এদিন বিজেপি কর্মীদের দল ছাড়ার আবেদনে কি দেখা গেল সেই ছবিটাই? নাকি এর পিছনে আছে অন্য কোনো প্রচ্ছন্ন ঘটনা, নাকি রয়েছে শাসক দলের চোখ রাঙানি,  উঠছে প্রশ্ন?

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য