স্নায়ু রোগে আক্রান্ত ছেলের আবদারে মিঠুনের জন্মদিনে ব্রেক ডান্স করল বাবা

জলপাইগুড়ির মাসকালাইবাড়ি এলাকার বাসিন্দা হলেন রঞ্জন পাল। ছেলে ঋশু পাল জন্ম থেকেই জটিল স্নায়বিক রোগে ভুগছে। অল্প বয়সে ছেলের শরীরে একটি কৃত্রিম নার্ভ বসানো হয়েছিল। যদিও বর্তমান বয়স ১৯ বছর, তবে এখনও ভাল ভাবে কথা বলতে পারে না সে। এমনকি হাঁটাচলাও স্বাভাবিক নয়।

ঋশু দিনের বেশিরভাগ সময় সিনেমা দেখে। যার মধ্যে রয়েছে মিঠুন এবং দেবের সিনেমা। সে কোনওভাবে জানতে পারে যে বুধবার মিঠুন চক্রবর্তীর জন্মদিন। তাই বাবার কাছে আবদার রাখে মিঠুনের মত ব্রেক ডান্স করতে হবে তাকে। আতএব পুত্রকে সন্তুষ্ট করতে নেচে উঠলো বাবা।

উল্লেখ্য, বিশ্বকাপ চলাকালীন, ছেলে বলেছিল  ব্রাজিলিয়ান ক্লাব হাউসের আদলে ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়ের ছবিতে বাড়ি সজ্জিত করতে হবে। সেই সময় রঞ্জন বাবু ছেলের আবদার রাখতে ঘর সাজিয়েছিলেন। তিনি ছেলেকে সন্তুষ্ট রাখার সব সময় চেষ্টা করে থাকেন।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
১৫০টির বেশি পরিবারের হাতে ত্রান তুলে দিলেন শালতোড়ার বিধায়ক চন্দনা বাউড়ি
পাগল ছাড়া মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে কেউ বিশ্বাস করেননা - মমতাকে ফের আক্রমণ দিলীপের
‘কালো কুকুর চিৎকার করে’, ধনখড় প্রসঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্য মদন মিত্রের
"কে সুজাতা? কোনো স্ট্যান্ডার্ড নেই। পাগলের মত সবসময় বকে যায়।"-বৈশাখী
‘আমরা কর্মীদের নিরাপত্তা দিতে পারছিনা, তাই দল ছেড়ে যাচ্ছে’ : দিলীপ
কালিয়াচক কাণ্ডে নয়া মোড়! ক্রমশ রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে
বাংলায় চাকরি নেই, তাই মানুষ গুজরাত-মহারাষ্ট্রে ছুটছে: দিলীপ