রাজ্যপাল যে পদ্মপাল এটা সকলেই জানে’, ধনকরকে বিঁধলেন চিরঞ্জিত

জগদীপ ধনকর রাজ্যপাল হয়ে আসার প্রথম দিন থেকেই রাজ্যের সঙ্গে সংঘাত চরমে। সম্প্রতি রাজ্যপাল দিল্লি গেছেন। সূত্রের খবর, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন তিনি। এবার ধনকরকে নিয়ে মন্তব্য করলেন  বারাসতের তৃণমূল বিধায়ক চিরঞ্জিত চক্রবর্তী। তিনি বলেন, ‘রাজ্যপাল যে পদ্মপাল এটা সকলেই জানে। তিনিও আর রাখঢাক করছেন না।’

বাংলার সংস্কৃতির সঙ্গে বিজেপির কোনও যোগ নেই। বিজেপিকে সবসময়ই বাংলা বিরোধী শক্তি হিসেবে দেখিয়েছে তৃণমূল। তাতে সুর মিলিয়েই অভিনেতা বিধায়ক দাবি করেন, ‘বিজেপি চায় মেধাবী বাঙালিকে উপড়ে ফেলে দিতে। কারণ, সবই তো এই বাংলায়। বিজ্ঞানী থেকে বড় বড় লেখক। এমনকী, জাতীয় সঙ্গীতও এই বাংলায় সৃষ্টি হয়েছে। ফলে ওঁদের লোকেদের প্রোমোট করার জায়গায়ই পাচ্ছে না।’সম্প্রতি উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য কিংবা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল তৈরির দাবি করেছেন অলিপুর দুয়ারের বিজেপি সাংসদ। জন বার্লারের করা ওই বিতর্কিত মন্তব্য প্রসঙ্গে চিরঞ্জিত বলেন, ‘বাংলা কিন্তু বিভাজন চায়না। বিভাজন সৃষ্টি করতে চাইছে বিজেপি।’কিছুদিন আগেই এই কথার সুর শোনা গিয়েছিল পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের গলায়ও। তিনি বলেছিলেন, ‘বিজেপির মদতে কাজ করছেন জগদীপ ধনকর। শুধুমাত্র চেঁচামেচি করে বাংলায় অশান্তি তৈরির চেষ্টা করা হচ্ছে। বাংলার মানুষ কখনই সেটা মেনে নেবে না। সারাক্ষণ শুধু অশান্তি আর অশান্তি। বাংলার মানুষ যথেষ্ঠ শান্তিতে আছেন।’ তিনি কটাক্ষ করে আরও বলেন, ‘রাজ্যপালের কাউন্সেলিং দরকার।’

রাজ্যপালের দিল্লি সফর নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রও। টুইটারে তিনি লিখেছিলেন, ‘আঙ্কলজি দিল্লি যাচ্ছেন, রাজ্যপাল সাহেব দয়া করে আর ফিরবেন না।’এদিন রাজ্যপালকে কটাক্ষ করেন তৃণমূলের যুব সাধারণ সম্পাদক দেবাংশু ভট্টাচার্যও। তিনি বলেন, ‘রাজ্যপাল বিজেপির মুখপাত্র। আলাদা করে ওঁর নামটা নিতেই চাইনা। তাঁর নাম নিলে দিনটা খারাপ যায়।’ প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই হ্যাশট্যাগ ধনকর আব বন্ধ্ কর্ প্রচার শুরু করেছিলেন তিনি। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যপালের বারবার রাজ্যকে আক্রমণ করে টুইট, দিল্লি সফর এইসব কিছু নিয়ে বিতর্ক হয়েই চলেছে। বিজেলি বিরোধী প্রায় সকল দলই রাজ্যপালের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। এমনকী, তাঁর সাংবিধানিক পদের অমর্যাদা করছেন বলেও দাবি করছেন। সেই পরিস্থিতিতে তৃণমূলের সর্বস্তর থেকেই যে, রাজ্যপালকে কড়া আক্রমণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে সেটা পরিষ্কার।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য