সারদা মামলায় দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের জামিন মঞ্জুর, তবুও থাকতে হবে জেলেই

পশ্চিমবঙ্গে সারদা সংক্রান্ত সিবিআই-র দায়ের করা সব মামলায় জামিন পেলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। তবে অন্যান্য রাজ্যে সারদার যে সব মামলা রয়েছে, তাতে অভিযুক্ত হিসাবেই থাকবেন দেবযানীদেবী। শনিবারের শুনানিতে এরকমই নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের বিশেষ ডিভিশন বেঞ্চ। আসাম, ওড়িশায় দেবযানী মিখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তাই জামিন পেলেও এখনই তাঁর জেলমুক্তি নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। ভুয়ো অর্থ সংস্থা সারদা আর্থিক দুর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে।

২০১৩ সালে সারদা দুর্নীতির খবর প্রকাশ্যে আসে। রাজ্যজুড়ে সারদায় প্রতারিতদের সংখ্যা প্রায় কয়েক লক্ষ। সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন ও দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বাংলার একাধিক থানায় অ্থ তছরুপের অভিযোগ দায়ের হয়। এরপরই ২০১৩ সালে ২২ এপ্রিল কাশ্মীর থেকে কলকাতা পুলিশ সুদীপ্ত সেন ও দেবযানীকে গ্রেফর করে।

২০১৪ সালে সারদা টুর অ্যান্ড ট্রাভেলস মামলায় অভিযুক্ত হন দেবযানী। তিনি রাজ্যের সমস্ত মামলা থেকে অব্যাহতি চেয়ে জামিনের আবেদন করেছিলেন। সেই মামলাই কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির এজলাসে চলছিল। যাবতীয় চিটফান্ড মামলার সব শুনানি তাঁর নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চেই চলছে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ এদিন দেবযানীর জামিন মঞ্জু করেন।

মামলায় এদিনের শুনানিতে দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের জামিনের বিরোধিতা করে সময় চায় সিবিআই। যদিও হাইকোর্ট তা নাকচ করে। মামলার ট্রায়াল এখনও কেন শুরু হয়নি তা নিয়ে প্রশ্ন তোলে আদালত। এরপরই ২ লক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে দেবযানীর জামিন মঞ্জুর করা হয়।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
১৫০টির বেশি পরিবারের হাতে ত্রান তুলে দিলেন শালতোড়ার বিধায়ক চন্দনা বাউড়ি
পাগল ছাড়া মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে কেউ বিশ্বাস করেননা - মমতাকে ফের আক্রমণ দিলীপের
‘কালো কুকুর চিৎকার করে’, ধনখড় প্রসঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্য মদন মিত্রের
"কে সুজাতা? কোনো স্ট্যান্ডার্ড নেই। পাগলের মত সবসময় বকে যায়।"-বৈশাখী
‘আমরা কর্মীদের নিরাপত্তা দিতে পারছিনা, তাই দল ছেড়ে যাচ্ছে’ : দিলীপ
কালিয়াচক কাণ্ডে নয়া মোড়! ক্রমশ রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে
বাংলায় চাকরি নেই, তাই মানুষ গুজরাত-মহারাষ্ট্রে ছুটছে: দিলীপ