হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !

উচ্চ প্রাথমিকে প্রায় সাড়ে ১৪ হাজার শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগে অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশ জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ সংক্রান্ত মামলা আদালতে উঠলে অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশ দেয় হাইকোর্ট। এরপরেই নিজের প্রবল অসন্তোষ জাহির করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বললেন, “যখনই নিয়োগ হচ্ছে, তখনই কোর্টে মামলা করে দিচ্ছে।” জযদিও মুখ্যমন্ত্রীকে পাল্টা আক্রমণ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বললেন, ওনারা চাকরি দিতে পারবেন না। তৃণমূলের নিজের লোকেরাই মামলা করছে।নিয়োগে মামলার বিষয়ে গভীর ষড়যন্ত্রর কথা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ নিয়ে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য।

উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগের ক্ষেত্রে আদালতে এই মামলার প্রসঙ্গে তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য বলেছেন, “বাংলায় ষড়যন্ত্র চলছে। ‌যেখানে পশ্চিমবঙ্গ সরকার বেকার যুবক যুবতীদের চাকরি পাওয়ার জন্য প্রচেষ্টায় রত সেখানে এক শ্রেণীর রাজনৈতিক দুর্বৃত্ত এই বেকার যুবক-যুবতীদের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করার পথে বাধা দিচ্ছে। ‌ এই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের কথা বার্তা দেখে আপনিও লজ্জা পাবেন।”সেই সঙ্গে টুইটারে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের কিছু চ্যাটের স্ক্রিনশট আপলোড করেছেন দেবাংশু ভট্টাচার্য

এর মধ্যে একটি চ্যাটে লেখা রয়েছে, “যে সকল প্রার্থী ইন্টারভিউতে ডাক পান নি তারা একবার অবশ্যই কেসের মাধ্যমে শেষ চেষ্টা করতে পারেন। এখন আপনাদের যদি পজিটিভ কিছু হয় সেটা একমাত্র কেসের মাধ্যমিক সম্ভব হবে।” তাছাড়া কিভাবে মামলা করতে হবে? কত টাকা লাগবে তার বিস্তৃত বর্ণনা ওই গ্রুপে বলা হয়েছে। এই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের নাম দেওয়া হয়েছে ‘আপার প্রাইমারি গ্রুপ’। এই গ্রুপের স্ক্রিনশট গুলোই তুলে ধরে গভীর ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছেন দেবাংশু ভট্টাচার্য।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য
কাজ করছে না পঞ্চায়েত! চন্দনা বললেন 'আমার হাতে ছেড়ে দিন আমি একাই সামলে নেব"