কাঁচি দিয়ে বম্ব ডিফিউজড, গাঁজাখুরি গল্প সত্ত্বেও শেষ এপিসোডে সুপারহিট জবা

স্টার জলসার জনপ্রিয় বাংলা সিরিয়াল ‘কে আপন কে পর’। এই ধারাবাহিক ২০১৬ সালে ২৫ জুলাই শুরু হয়ে ২৭ ডিসেম্বর, ২০২০ এ শেষ হয়েছিল। তবে বিশেষ সতর্কবার্তা, বোমা স্কোয়াডের সাথে যুক্ত কেউ যদি এই প্রতিবেদনটি পড়েন তবে দয়া করে হবেন না। কেননা  এই ধারাবাহিকের নায়িকা জবা   কাঁচি দিয়ে বোমা নিষ্ক্রিয় করেছিলেন।আর যে কারনেই হয়তো শেষ দিন অবধি ‘কে আপন কে পর’ ধারাবাহিকের টিআরপি অক্ষুণ্ন ছিল।

এই ধারাবাহিকের টিআরপি বাড়লেও সমাজের কাছে কতটা বার্তা দেয়, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়। কেননা কাঁচি দিয়ে বোমা নিষ্ক্রিয়ের ঘটনা গাঁজাখুরি গল্প ছাড়া কিছু না যা  সমাজে ভুল বার্তা প্রেরণ করে। আসলে কোনো চিত্রনাট্যে অপ্রয়োজনীয় ভুল তথ্য ঢোকানো উচিৎ নয়।

আসলে ‘কে আপন কে পর’ ধারাবাহিকে তথাকথিত নিম্ন শ্রেণীর মেয়ে জবার জীবনকে ঘিরে আবর্তিত। বাড়ির কাজের মেয়ে থেকে জবার শিক্ষিত হওয়ার কাহিনী সত্যী প্রশংসিত।  এমনকি জবার সাথে বাড়ির ছেলের বিয়েও সমাজে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে। তবে সমস্যা শুরু হয় যখন জবা পড়াশোনা না করে আইনজীবী হয়, কাঁচি দিয়ে বোমা নিষ্ক্রিয় করে। শুধু তাই নয়, জবাকে দিওয়ালির রাতে খুন করা হলে সে পুনরায় জীবিত হয়ে ওঠে, কেননা সে তো অমর। কবর খুঁড়ে বেরিয়ে আসে।

 

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘মুখে কিছু না বললেও আর কতদিন টানতে পারবো জানি না’, করুণ পোস্ট ‘ভিলেন’ সুমিতের
অভিনেতা নয়, বডিবিল্ডারই হতে চেয়েছিলেন রবি ঘোষ
১৫ বছরের দাম্পত্যে ইতি টানছেন আমির-কিরণ
কঠিন লড়াইয়ের মধ্যেও হার না মেনে মানুষকে হাসানোর নাম শুভাশিস
‘শারীরিক ও মানসিক ভাবে যন্ত্রণায় ভুগেছি’, সুস্থ হয়ে ওঠার পর বললেন মিমি
শ্রাবন্তীর ব্যথায় কাতর! কন্ডোমের মধ্যে হৃদয় ভরে কী বলতে চাইলেন রোশন!
চুরির দায়ে গ্রেফতার হলেন মিঠাই খ্যাত অভিনেত্রী সৌমিতৃষা
আর ‘‌বোনুয়া’‌ নন?‌ নুসরত প্রসঙ্গ উঠতেই এড়িয়ে গেলেন মিমি
মৌ বৌদি’ মনামীর বিছানায় কিলবিল করে উঠলো কেউটে সাপ, ভাইরাল ভিডিও!
ঘরে হাউহাউ করে কাঁদছি ,কী উত্তর দেব মুখ্যমন্ত্রী এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে