যতদিন বাঁচব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শ্রদ্ধা করব: রাজীব

জানুয়ারির শেষে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে নিয়মিত কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। বিজেপি ডোমজুড়ের টিকিট দেওয়ার পর সেই আক্রমণের ঝাঁজ আরও বেড়েছে। ২০১৬-তে রেকর্ড ভোটে জিতলেও এবার একই আসন থেকেই গোহারা হারতে হয়েছে বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তারপরই সুর বদলালেন দলবদলু রাজীব। একটি সংবাদপত্রকে রাজীব জানিয়েছেন, যতদিন বেঁচে থাকবেন, ততদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শ্রদ্ধা করবেন।

 

২০১৬-এ হাওড়ার ডোমজুড় থেকে ১ লক্ষ ৭ হাজারের কিছু বেশি ব্যবধানে জিতেছিলেন রাজীব। ডোমজুড় আসনে নিজের পুরনো দলের প্রার্থী কল্যাণেন্দু ঘোষের কাছে এবার গোহারা হেরেছেন তিনি। তবে হারের কারণ সম্পর্কে তিনি সেভাবে কিছু বলেননি। এদিকে রাজ্যজয়ের পর কালীঘাটে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দলবদলুদের উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। মমতা বলেছিলেন, আসুক না। কে বারণ করেছে! এলে স্বাগত। এই পরিস্থিতিতে রাজীবের মমতা সম্পর্কে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্যের জেরে তাঁর তৃণমূলে প্রত্যাবর্তনের জল্পনা জোরালো হয়েছে।

 

তৃণমূলে প্রত্যাবর্তনের প্রসঙ্গে অবশ্য রাজীব সরাসরি কিছু বলেননি। ডোমজুড়ের প্রাক্তন বিধায়কের কথায়, এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করব না। কে জল্পনা ছড়িয়েছে জানি না। জানুয়ারির ৩০ তারিখ চাটার্ড ফ্লাইটে দিল্লি গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর কেঁদেও ফেলেছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী। এমনকি বিধানসভায় থেকে তাঁকে মমতার ছবি হাতে বেরোতে দেখা গিয়েছিল! তবে একুশের মহাযুদ্ধে সেই মমতাকেই বারবার চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি।

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য