২০২১ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন , বাংলায় এসে বললেন অমিত শাহ

বাংলায় পরিবর্তন আনবেন বিজেপি কর্মীরা৷ ২০০ আসন নিয়ে ২০২১ সালে বাংলায় সরকার গঠন করবে বিজেপি৷ আজ মেদিনীপুরে সভামঞ্চ থেকে দলীয় কর্মীদের ফের একবার উদ্বুদ্ধ করেছেন অমিত শাহ৷ কিন্তু, বিজেপি ক্ষমতায় এলে কে হবেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী? এতদিন এই প্রশ্ন এড়িয়ে গিয়েছিলেন অমিত শাহ৷ কিন্তু, শুভেন্দু অধিকারী দলে যোগ দিতেই মুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন অমিত শাহ৷ শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর সফরে গিয়ে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অমিত শাহ জানিয়েছেন, বাংলায় ২০০ আসন নিয়ে সরকার গঠন করবে বিজেপি৷
 
একইসঙ্গে এও বলেন মুখ্যমন্ত্রী হবেন বাংলারই কোনও ভূমিপুত্র৷ তবে, সুকৌশলে মুখে কোনও নাম নেননি শাহ৷ সাক্ষাৎকারে শাহ বলেন, ‘আমি বাংলার দিদিকে বলতে চাই, তাঁকে হারাবেন বাংলার বিজেপি কর্মীরা৷ জয়ের পর মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, তা ঠিক করা হবে৷ তবে, যে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হবেন, তিনি হবেন বাংলার কোনও ভূমিপুত্র৷ বাংলায় বিজেপি মুখ্যমন্ত্রীর মুখ ছাড়াই ভোটে লড়বে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷ তবে, মেদিনীপুরে দাঁড়িয়ে শুভেন্দুর দলে যোগদানের পর অমিত শাহের এই মন্তব্য যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ৷ ফলে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী নিয়ে তৈরি হয়েছে নানা জল্পনা৷
 
এই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী নিয়ে চর্চায় রয়েছে রাজ্যের এক খ্যাতনামা ক্রিকেটার থেকে শুরু করে রাজ্য সভার সাংসদ ও একজন কেন্দ্রী মন্ত্রীর নাম৷ সঙ্গে এক সাংসদের নামও রয়েছে৷ প্রাক্তন রাজ্যপালের নাম নিয়েও রয়েছে চর্চা৷ হালে আরও এক প্রাক্তন মন্ত্রীর নামও চর্চায় উঠে আসছে৷ আর এই চর্চার মধ্যে অমিত শাহের এই মন্তব্য নতুন করে জল্পনা তৈরি করেছে৷
 

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য