শীতলকুচি নিয়ে বড়‌ পদক্ষেপ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

শপথ নিয়েই শীতলকুচি-কাণ্ডে কড়া পদক্ষেপ নিলেন  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাসপেন্ড করলেন কোচবিহারের পুলিস সুপার দেবাশিস ধরকে । তাঁর জায়গায় এলেন কে কান্নান। ভোটের সময় তাঁকে সরিয়েই দেবাশিস ধরকে এনেছিল নির্বাচন কমিশন। রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোট চলাকালীন শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছিল ৪ জনের। এই ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন যথাযথ তদন্তের। সেই কাজই শুরু করলেন তিনি।

এবার শীতলকুচি-কাণ্ডের তদন্ত করতে চলেছে নবান্ন। চতুর্থ দফার ভোটে গত ১০ এপ্রিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে শীতলকুচির জোড়পাটকির ১২৬ নম্বর বুথে বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয় সমিউল মিয়াঁ, মণিরুল মিয়াঁ, হামিদুল মিয়াঁ এবং নুর ইসলাম মিয়াঁ নামে ৪ গ্রামবাসীর। সেই সময় কোচবিহারের পুলিস সুপার দেবাশিস ধর বলেছিলেন, প্রায় ৩০০ জন ঘিরে ধরেছিল বাহিনীকে। শূন্যে গুলি চালিয়েও তাদের সংযত করা যায়নি। আগ্নেয়াস্ত্র কেড়ে নিতে চেয়েছিল ভিড়। ফলে, গুলি চালাতে বাধ্য হন জওয়ানরা। যদিও পরবর্তীতে যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল সেখানে ৩০০ জনের ঘিরে ধরার কোনো ছবি সামনে আসেনি।

এসপি-র দাবি মানতে চাননি তৃণমূল নেত্রী। গোটা ঘটনা অমিত শাহের ষড়যন্ত্র বলে অভিযোগ করেছিলেন মমতা। ভোটে জয়লাভের পরও মমতা বলেছিলেন,“কোচবিহারের এসপি বিজেপির হয়ে কাজ করছেন। সব দেখে নেব।” ফলে কোচবিহারের দেবাশিস ধরের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নিতে পারে বলে প্রত্যাশা ছিলই। মমতা শপথ নিয়ে নবান্নে ফেরার দিনেই তা ঘটল।

সাসপেন্ড করা হল দেবাশিসকে। মমতার উস্কানিতে শীতলকুচিতে বাহিনীর উপরে তৃণমূলের লোকেরা চড়াও হয়েছিল বলে দাবি করেছিল বিজেপি । যদিও সেই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, ”২০-২২ বছরের ছেলেদের মেরে দিয়েছে। ষড়যন্ত্র করে মারা হয়েছে। এসপি-র সঙ্গে বসে ষড়যন্ত্র করেছে বিজেপি। আমি এটার তদন্ত করাবই। আসল ঘটনা বের করে আনবই।”

হ্যাঁ, আমি অনুদান দিতে ইচ্ছুক

    You May Like this Article
 

You May Like

‘নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করেছে বিজেপি কর্মী’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলেই হেরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা: শুভেন্দু
ঠাঁই নেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, রাজ্য যুব মোর্চার পদ থেকে ইস্তফা সৌমিত্রর
‘মানুষ বোকা নয়’, যশ-শ্রাবন্তী-পায়েলকে নিয়ে সমালোচনায় বিজেপি নেত্রী কাঞ্চনা
মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বসে থাকুন, বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয় র
আজ থেকে অধিবেশন, ভেবে চিন্তে আপাতত পদ্ম সারিতেই বসবেন মুকুল
হোয়াটসঅ্যাপ এর বার্তা ফাঁস করে ষড়যন্ত্রর প্রমাণ দিলেন দেবাংশু !
‘রাজ ভবনে কেন দেবাঞ্জনের দেহরক্ষী?’রাজ্যপালের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করে তোপ তৃণমূলের
‘পরকীয়া’য় বেশি মন রাজ্যপালের, বিতর্কিত দাবি মদন মিত্রের
ভোটার সংখ্যা ৬৭৬, কিন্তু ভোট পড়ল ৭৯৯! নন্দীগ্রামের নথি নিয়ে তোলপাড় রাজ্য